Category Archives: Macro & Closeup Photography

খুব সহজে ঘরে বসে বানিয়ে ফেলুন মোবাইলের জন্য ম্যাক্রো লেন্স

এখন বলবো কি করে ৭ টি মেথডে ম্যাক্রো লেন্স বানাবেন মোবাইলের জন্য….

 

•১.Door Viewer Lens : আধুনিক কালের দরজার চিপায় চাপায় একটা ছোট ছিদ্র থাকে যেখান থেকে বাহিরের মানুষকে দেখা যায়, রিং বাজলেই তাকাইয়া দেখে। এটা অনেক যায়গায় ব্যবহার করা হয়, যেখানে দরজা বা ঘর বাড়ির মেরামতের জিনিস পাওয়া যায় সেখান থেকে এটা সহজে ১০০/১৫০ টাকা দিয়ে কিনে নিতে পারেন।
•২।DVD Drive & Disposable Camera lens : পুরানো ক্যামার অথবা DVD থেকে অথবা সিডি থেকে সহজে লেন্স টা সংগ্রহ করে মোবাইলের ক্যামারার পিছনে ক্লিপ দিয়ে লাগিয়ে লেন্স তৈরি করতে পারেন…।
•৩।Water Drop : যাদের কিছুই নাই, তাদের বাড়ির আনাচে কানাচে খুজলেই এক ফোট পানি পেয়ে জাবেন LOL! আসলে পানি আপনি সিরিঞ্জ থেকে এক ফোটা মোবাইলের ক্যামারার উপরে দিয়ে ট্রাই করতে পারেন( আমি ট্রাই করছিলাম, বাট না বোঝে করার ফলে ক্যমারা টা লাস্টে ঝাপসা হয়ে গেলো, পরে খুলে পরিষ্কার করেছি আবার)
•৪: Reading Glasses Lens: দাদা দাদী নান নানীর পাওয়ারের চশমা টা খুঁজে বের করে লাগিয়ে দিন ক্যামারা সামনে রেজাল্ট ভালো পাবেন আমি ট্রাই করে দেখেছি এটা…..
•৫: Magnifying Lens: এটা ও সেই ৪ নাম্বারের মতই, চশমার দোকানে দৌড়ায়া গিয়ে এই গ্লাস কিনে আনতে হবে, তবে বেশি পাওয়ারের হলে বেশি ভালো রেজাল্ট পাবেন….!
•৬: লেজার লাইট: পোলাপানের খেলনার দোকান থিকা ৪০/৫০ টাকা দিয়ে কিনে লাইট টা ভেংগে ফেলুন সুন্দর ভাবে, ভিতরে একটা ছোট লেন্স পাবেন সেটাও ২ নাম্বারের মতন করে লাগিয়ে কাজ করুন…
•৭।দোরবীনঃ ভাইঙ্গা ফালান ভিতরে গ্লাস পাবেন সেটা ক্যামার উপরের কস্টিপ দিয়ে লাগিয়ে দিন কেল্লা ফত।

আজকের লেন্সগল্প (৬) : পোকাপুকি ওরফে ম্যাক্রু লেন্স – কুতুব উদ্দীন

প্রথমে জানিয়ে রাখি এই গল্পটা আমি লিখি নাই। ম্যাক্রু যাদুকর কুতুব উদ্দীন ম্যাক্রো লেন্স নিয়ে এই গল্পটি লিখেছে। গ্রাসহপার্স এর অনেক মেম্বার অনুরোধ করেছিলেন, ম্যাক্রো লেন্স নিয়ে কিছু একটা লিখতে। আমি ম্যাক্রো লেন্স সম্পর্কে অজ্ঞ তাই আমি কুতুব উদ্দীনের সহযোগিতা চেয়েছিলাম। উনি আমাকে নিরাশ করেন নি। দারুন গল্প লেখে পাঠিয়ে দিয়েছেন। আমি উনাকে গল্পটা গুছিয়ে দিয়েছি তারপর উনার অনুমতি নিয়ে আমি গল্পটি নিজে আপলোড করলাম। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।

————————————————————————————————-
আজকের লেন্সগল্প (৬) : পোকাপুকি ওরফে ম্যাক্রু লেন্স – কুতুব উদ্দীন

একদিন অনলাইনে বসে বসে ছবি দেখতেছিলাম, একটা মাছির চোখ দেখে মুখ হা হয়ে গেলো, মাথা আউলাইয়া গেলো, ভাবতে লাগলাম হালায় এইডা তুলল ক্যামনে ! না, আমাকেও ম্যাক্রো করতে হবে। পুকাপোকিগ্রাফি করতে হবে।

১৮-৫৫ মি.মি কিট লেন্স হাতে নিয়া মাছি খুজতে লাগলাম্। রান্না ঘরে বউয়ে রান্দে, আমি এই ঘরে ওই ঘরে গিয়ে মাছি খুঁজি। আমার বউ আমার উল্টা পাল্টা কাজকারবারের ব্যাপারটা খেয়াল করলো। আমার বউ আমারে ঝারি দিয়া কইলো, “এদিক ওদিক এখানে ওখানে কি করো। এক জায়গাতে স্থির হয়ে বসে থাকো”। আমি মুচকি হাসি দিয়ে কহিলাম,“জ্বি মানে, একটা বদ মাছি ঢুকছে, ওইটারে একটু সাইজ দিতে ঢুকছি”।

একটা মাছি পেয়েও কিট লেন্স দিয়ে মাছির চোখতো দূরে থাক, মাছিটারেও কাছে টেনে আনতে পারলাম না। মেজাজটা খুব খারাপ হলো। এতো দাম দিয়ে ক্যামেরা কিনলাম হালার বলদা মাছিটারেও টাইনা কাছে আনতে পারলাম না। আমি হালার একটা বলদ। এই দুঃখ কই রাখি । মন খারাপ হলো অনেক।

Kutub Uddin Macro -3

পড়ার ঘরে এসে অনলাইনে ঘাঁটাঘাঁটি করলাম। বুঝতে পারলাম বেকুবতো আমার ক্যামেরা না, বেকুবতো হালার আমি। কিট লেন্স দিয়ে কি ম্যাক্রু হয়।

যাউকগা, ট্যাকটুকা নাই ম্যাক্রু লেন্স কিননের, তাই কিট লেন্সটারে দিয়া ম্যাক্রু তুলুম তাই ম্যাক্রু ফিল্টার কিনলাম।

ম্যাক্রু ফিল্টার দিয়া আরেকটা মাছিরে কাছে পেয়ে গেলাম। লগে লগে কিলিক। খুশীতে ডিসপ্লে দেইখ্যা চান্দি হট। সব কালাকুলা ছবি মাথামুথা কোনদি যে কি, বুঝনের নো ওয়ে। লাইটিং সেটআপ ভ্যাজাল হইতাছে।। লাইটতো পর্যাপ্ত পাচ্ছিলাম না। আবার অনলাইনে ঘাঁটাঘাঁটি করে দেখলাম এবং বুঝলাম আমাকে আবার ফকির হতে হবে মানে ম্যাক্রু ফ্ল্যাশও একটা কিনতে হবে। যাই হোক কিনলাম। আবার ছবি তুললাম, মাগার আবার নতুন সমস্যা কিমুন জানি ঘুলাঘুলা, নো ইস্পষ্ট, মাথা ঘুরাইলে যেমন দুনিয়াডা ঘুলা লাগে, হেরাম লাগে। পর্যাপ্ত শার্পনেস পাচ্ছিলাম না,
হঠাৎ দেখি ম্যাক্রুর প্রেমে পইড়া গেছি। ওরে প্রেম হালার মাথা নষ্ট কইরা
ঠিক করলাম ম্যাক্রু লেন্স কিনবো। টাকা জমানো শুরু করলাম।

একদিন ম্যাক্রু লেন্স কিনে নিলাম ১০০ এম এম এর এবং ঝাঁপাই পড়লাম ম্যাক্রুগ্রাফিতে। পোকাপুকা, ব্যাঙাবুঙা যাই পাইছি কোপাইয়া লাইছি।

যাই হোক আসল কথায় আসি, মেলা গল্প হইছে, দুষ্টুমী হইছে, এবার একটু সিরিয়াস টেকনিকাল আলাপ ছাড়ি, ম্যাক্রো লেন্স হলো, সেই লেন্স যেটা আপনি ব্যবহার করে একটা সাবজেক্টকে আপনার চোখের ঠিক সামনে এনে আপনি যতো বড় দেখবেন ততো বড় বা তার চেয়ে বড় এই লেন্স দেখাবে।

Kutub Uddin Macro-1

ম্যাক্রো ১:১ মেগ্নিফিকেশন থেকে শুরু হয়। এখন কথা হচ্ছে ১:১ মেগ্নিফিকেশন্টা কি ? ১:১ হচ্ছে লাইফ সাইজ। এখানে প্রথম ১ হচ্ছে, আপনার ক্যামেরার প্রজেক্টরে সাবজেক্ট এর সাইজ এবং অন্যটি হচ্ছে রিয়েল লাইফে সাবজেক্টের সাইজ। মনে করেন, একটা মাছি যদি ১ সেন্টিমিটার লম্বা হয় এবং আপনার লেন্স যদি সেটাকে সেন্সরে ১ সেন্টিমিটার প্রোজেক্ট করে তাহলে সেটি ১:১ মেগ্নিফিকেশন। আর যদি সেন্সরে সেটি .৫ প্রজেক্ট করে তাহলে বুঝতে হবে আপনার সাবজেক্ট প্রজেক্টার থেকে .৫ টাইমস বড়। তারমানে সেটিকে ১:১.৫ মেগ্নিফিকেশন বলে কিন্তু ১:১.৫ ম্যাক্রো নয়। এখন মনে করেন, মাছিটিকে আপনার ক্যামেরার প্রজেক্টরে ৫ সেন্টিমিটার দেখাচ্ছে তার মানে রিয়েল লাইফে মাছিটি ৫ টাইমস ছোট। আর সেটিকে ৫:১ মেগ্নিফিকেশন বলে্। সাধারন ম্যাক্রো লেন্সগুলা ১:১ থাকে। শুধু ক্যানন এর ৬৫ এম এম লেন্সটি ৫:১ মেগ্নিফিকেশন হয়। ১:১ মেগ্নিফিকেশন থেকে আপনাকে আরও বড় পেতে হলে আপনাকে ম্যাক্রো ফিল্টার বা এক্সটেনশন টিউব ব্যাবহার করতে হবে। আপনার ম্যাক্রো লেন্স এর সাথে ট্যামরন ৭০ এম এম – ৩০০ এম এম লেন্সকে ম্যাক্রো ম্যাক্রো লেন্স বলে চালাচ্ছে আসলে এটি ম্যাক্রো লেন্স না। কারন এটি ১:২ মেগ্নিফিকেশন যার মানে এটি সাবজেক্টকে নর্মাল থেকে ২ টাইমস ছোট দেখায়।

হে:হে: আজকেই নেমে পড়ুন ম্যাক্রুগ্রাফি ওরফে পোকাপুকিগ্রাফি । আপনার ম্যাক্রুগ্রাফির প্রতি শুভ কামনা।

Kutub Uddin Macro-2

(কুতুব উদ্দীন)

ক্লোজ-আপ ছবিকে আকর্ষণীয় করে তোলার কৌশল- কুতুবউদ্দীন

আমরা মাজে মাজে ক্লোজ-আপ ছবি তুলে হতাশ হই যখন দেখি ছবিটি আকর্ষণীয় হয় নি । কোন কোন সময় আমরা  কিছু ছবি দেখে আশ্চর্য হই, কিভাবে তুলেছে ভেবে ঘুম আসে না । কিছু  কৌশল অনুসরন করে আপনি আপনার ক্লোজ- আপ বা ম্যাক্রো ছবিকে ওদের মতো আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন । আজ সেই কৌশল গুলা নিয়ে কিছু আলোচনা করবো ।

Macro And Close-up Photography Part-2 (Sharpness) Kutubuddin

When you magnify a subject, you also magnify movements caused by camera shake. Standard shutter speed requirements therefore no longer apply (such as the common one over focal length rule). Furthermore, small variations in camera position can also make huge differences in subject composition. It’s therefore critical to either experiment with what you’re capable of capturing hand-held, or to just always use a camera tripod.

Macro and Close-up Photography Introduction – Kutub Uddin

What is Macro and Close-up Photography

Macro and close-up photography can take the viewer to new and seldom seen vantage points. However, macro photography also often demands more careful attention to photographic technique.